মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

স্বাস্থ কর্মসূচী

স্বাস্থ্য কর্মসূচী

ইপিআই কর্মসূচীঃ

· কর্মসূচীরনামঃসম্প্রসারিতটিকাদানকর্মসূচী

· কর্মসূচীবাসত্মবায়নকারীঃউপজেলাস্বাস্থ্যওপঃপঃকর্মকর্তাএবংতাহারআওতাধীনসকলস্বাস্থ্যকর্মী।

· অর্থায়নওঅন্যান্যসহায়তাকারীঃস্বাস্থ্যওপঃকঃমন্ত্রণালয়, বিশ্বস্বাস্থ্যসংস্থা।

-লক্ষ্যওপদ্ধতিঃশিশুদের০৮টিরোগেরবিরম্নদ্ধেপ্রতিরোধটিকাপ্রদানওভিটামিনএক্যাপসুলএরমাধ্যমেরাতকানারোগ  ওঅপুষ্টিপ্রতিরোধ।  মায়েদেরকে টিটি টিকার মাধ্যমে মা এবং নবজাতক শিশুর টিটেনাস প্রতিরোধ ব্যবস্থা। মায়েদের-কেভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানোর মাধ্যমে মায়েদের এবং নবজাতক শিশুদের ভিটামিন এ এর ঘাটতি পুরন।মূল লক্ষ্যহচ্ছে, শিশু ভোগান্তি এবং মৃত্যুহার কমানো।
· আওতাভুক্ত সুবিধাভোগী জনগোষ্ঠীঃ ১৫-৪৯বৎসরের সকল মহিলা এবং ০- ৬০মাস  বয়সী সকল শিশু।

সিকর্মসূচীঃ

· কর্মসূচীরনাম:  প্রসুতিসেবা।

· কর্মসূচী বাস্তবায়নকারীঃউপজেলাস্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা  এবং ইওসি অন্তরভুক্ত হাসপাতাল সমূহের ডাক্তার ও নার্স।

· অর্থায়ন ও অন্যান্য সহায়তাকারী- স্বাস্থ্যওপঃকঃমন্ত্রণালয়, ইউনিসেফ।

· লক্ষ্যওপদ্ধতি- নিরাপদমাতৃত্ব,বিপদমুক্তডেলিভারী এবং শিশু ও মাতৃ মৃত্যুহার কমানো।

· আওতাভুক্ত সুবিধাভোগী জনগোষ্ঠী- সকল গর্ভবতী মা।

আরআইকর্মসূচীঃ

· কর্মসূচীরনাম- এআরআই।

· কর্মসূচী বাস্তবায়নকারীঃ তত্বাবধায়ক/ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা সহ প্রতিষ্ঠানের সকল ডাক্তার,

চিকিৎসা সহকারী, ফার্মাসিষ্ট, নার্স।

· অর্থায়ন ও অন্যান্য সহায়তাকারী- স্বাস্থ্যওপঃকঃ মন্ত্রণালয়, ইউনিসেফ।

· লক্ষ্যওপদ্ধতি- শিশুদের নিউমোনিয়া এবং শ্বাসনালী প্রদাহ জনিত রোগের চিকিৎসা এবং প্রকোপ কমানো।

· আওতাভুক্ত সুবিধাভোগী জনগোষ্ঠীঃ সকল শিশু।

টিবিএবংলেপ্রোসীকন্ট্রোলকর্মসূচীঃ

· কর্মসূচীর নামঃ যক্ষ্মা ও লেপ্রোসী কন্ট্রোল কর্মসূচী।

· কর্মসূচী বাস্তবায়নকারীঃ ব্র্যাক এবং স্বাস্থ্য বিভাগ যৌথভাবে।

· অর্থায়ন ও অন্যান্য সহায়তাকারীঃ স্বাস্থ্য ও পঃকঃ মন্ত্রণালয়।

· লক্ষ্য ও পদ্ধতির মূল লক্ষ্য হচ্ছে ও পেনকেইস সনাক্ত করে চিকিৎসা প্রদানের মাধ্যমে রোগের বিস্তার নিয়ন্ত্রন করা।

· আওতাভুক্ত সুবিধাভোগী জনগোষ্ঠীঃবাংলাদেশের সকল জনগোষ্ঠী।

 

আর্সেনিক  কর্মসূচীঃ

· কর্মসূচীরনামঃ আর্সেনিকোসিস রোগ নির্ণয় কর্মসূচী।

· কর্মসূচী বাস্তবায়নকারীঃ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা এবং তাহার আওতাধীন সকল স্বাস্থ্যকর্মী।

· অর্থায়ন ও অন্যান্য সহায়তাকারীঃস্বাস্থ্য ও পঃকঃ মন্ত্রণালয়।

· লক্ষ্য ও পদ্ধতিঃ মূল লক্ষ্য হচ্ছে আর্সেনিকোসিস রোগ নির্ণয় এবং তাহার চিকিৎসা প্রদান।

· আওতাভুক্ত সুবিধাভোগী জনগোষ্ঠী সকল জনগোষ্ঠী।

এছাড়া ও অন্যান্য সকল ধরনের রোগের চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়।


Share with :

Facebook Twitter